Header Ads Widget

১ম শারীরীক মিলনে রক্তপাত হয় কি? সুস্থ যৌনজীবনের জন্য যা জানা জরুরী।

'সুস্থ জীবনের মানেই হল যৌ'নতা'। দিনে ১বার না একাধিকবার এ নিয়ে বিতর্ক থাকতেই পারে। কিন্তু 'যৌ'নতাহীন জীবন যে বাস্তব নয় এটা সকলেই মেনে নিয়েছেন'। 'যৌ'নতা নিয়ে যতই লজ্জা থাকুক না কেন, সঠিক তথ্য  জানা আমাদের অতিব জরুরী। তা না হলে সম্পর্কই থাকবে না আপনার পাটনারের সাথে।'



যৌ'নতা নিয়ে আমাদের অনেকেরই ভুল ধারণা আছে। সেই ভুল ধারণা থেকে বের হতে না পরলে সুস্থ জীবন পাওয়া মুশকিল। তাই আসুন জেনে নেই যৌ'নতা নিয়ে ৫টি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় বিষয়, যা নিয়ে আমরাই অনেকেই  সঠিক জানি না।



 

১ম মিলনের পর রক্তপাত হয়ঃ-

চিকিৎসাবিজ্ঞান অনুযায়ীঃ  মিলনের সময় হাইমেন বা সতীচ্ছদ ছিঁড়ে গেলে সামান্য রক্তপাত হওয়ার সম্ভবনা থাকে। সেখান থেকেই এই ভুল ধারণার উৎপত্তি। আসল ঘটনা হল, অনেক মেয়েরই জন্ম থেকে হাইমেন বা সতীচ্ছদ থাকে না বা থাকলেও ব্যায়াম করতে গিয়ে, গাছে উঠতে গিয়ে, সাইকেল চালাতে গিয়ে বা অন্য কোনও শারীরিক কসরত করার সময় তা ছিঁড়ে যেতে পারে। তাই প্রথম মিলনের সময় রক্তপাত হবেই, এ ধারণা মোটেই ঠিক নয়। অনেকেই এই ধারনা থেকে সংসারে অসান্তী সৃষ্টি করে এটা থেকে বেড়িঙে আসেন। সঠিক তথ্য জানুন।

পিরিয়ডের সময় গর্ভসঞ্চার হয় নাঃ-

'বহুকাল ধরে সে'ক্স নিয়ে এটি অন্যতম প্রচলিত মিথ। অনেকেই বিশ্বাস করেন মাসিক বা ঋতুস্রাব চলাকালীন গর্ভসঞ্চার হয় না। ফলে এই সময় অনেকের যৌ'ন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকে যায়'।তবে আসল কথা হল এ সময় গর্ভসঞ্চার যেমন হতে পারে, তেমনি এসটিডি "সেক্সুয়ালি ট্রান্সমিটেড ডিজিজ" অর্থাৎ নানারকম যৌন রোগও হওয়ার সম্ভবনা থাকে অনেক।

প্রতিবার সঙ্গমের সময় অর্গাজম হয়ঃ-

সম্পুর্ন ভুল ধারণা। 'শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের মধ্যে এমন অনেকগুলো ধাপ থাকে যা আপনাকে মিলনের সর্বোচ্চস্তরে পৌঁছে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে তার মানে প্রতিবার মিলনের সময় আপনি শীর্ষবিন্দুতে পৌঁছোবেন', ব্যাপারটা কোন ভাবেই তেমন নয় কিন্তু।

"পুলিং আউট"-এর কার্যকারিতাঃ-

'অনেকে মিলনের সময় কন্ডোম ব্যবহার করেন না, তাঁরা অনেক সময় শেষ মুহূর্তে ‘পুলিং আউট’ অথবা (বাইরে ফেলা) নীতিতে বিশ্বাস করেন। কিন্তু এ সব ক্ষেত্রে 'ব্যর্থ হওয়ার সম্ভাবনা ১০০ ভাগ'। তাই ভুল 'প্রেগন্যান্সি না চাইলে কন্ডোম বা অন্য গর্ভনিরোধক ব্যবহার করা জরুরী'।

অতিরিক্ত যৌনমিলনে লিপ্ত হলে হৃদরোগের আশঙ্কা বেড়ে যায়ঃ-

'যদিও এই কথার স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে কারও হার্ট অ্যাটাক হয়ে থাকলে সুস্থ হওয়ার পর কম পক্ষে ৪ থেকে ৬ সপ্তাহ যৌন সম্পর্কে না জড়ানোই ভালো'।

আরও পড়ুনঃ- বাচতে হলে এই যৌন রোগ গুলো থেকে সাবধান!

আরও পড়ুনঃ- প্রস্রাবে ফেনা হচ্ছে, হতে পারে ভয়ানক রোগের লক্ষণ! এরিয়ে যাবেন না


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য